জাতিসংঘ ও ভৌগোলিক বিশ্ব

2개월 전

যুক্তরাষ্ট্রের ২৮তম প্রেসিডেন্ট উড্রো উইলসন ৮ জানুয়ারি, ১৯১৮ কংগ্রেসে একটি বক্তব্য প্রদান করেন, যাতে ছিল ইউরোপে শান্তি প্রতিষ্ঠার ও জাতিপুঞ্জ গঠনের আহ্বান। এ বক্তব্যটি ছিল ১৪ দফা বিশিষ্ট। তাঁর বক্তব্যের প্রথম দফা উন্মুক্ত কূটনীতি। ৯, ১২, ১৩, ও ১৪ নম্বর পয়েন্ট যথাক্রমে ইতালির সীমান্ত পুণনির্ধারণ, তুরস্কের সমস্যাগুলোর সমাধান, স্বাধীন পোল্যান্ড রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা এবং সকল রাষ্ট্রের রাজনৈতিক ও স্বাধীনতা, রাজ্যসীমা ও নিরাপত্তা রক্ষায় জাতিপুঞ্জ গঠন।

পাঁচটি স্থায়ী সদস্য দেশের সাথে ভৌগোলিক অঞ্চল থেকে আবর্তিত ভিত্তিতে ১০টি অস্থায়ী সদস্য নির্বাচন করা হয়। প্রথম দুই দশকে, নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য ছিল ৬টি - অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, মিশর, মেক্সিকো, নেদারল্যান্ড এবং পোল্যান্ড। ১৯৬৫ সালে, অস্থায়ী সদস্য সংখ্যা দশে উন্নীত করা হয়। প্রতি বছর জানুয়ারি মাসে পাঁচটি সদস্য দেশ নির্বাচিত করা হয় এবং ঐ বছরই বাকি ৫টি দেশ অস্থায়ী সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়। এক্ষেত্রে সদস্য দেশ নির্বাচিত হওয়ার জন্য সাধারণ পরিষদের দুই-তৃতীয়াংশ ভোটের সমর্থন দরকার হয়। যেমন: ১ জানুয়ারি, ২০২১ পাঁচটি দেশ (ভারত, মেক্সিকো, আয়ারল্যান্ড, নরওয়ে ও কেনিয়া) নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করে এবং ঐ বছরই ১১ জুন, ২০২১ আরও পাঁচটি দেশ (গ্যাবন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ব্রাজিল, ঘানা ও আলবেনিয়া) নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়।

গত ৯ জুন, ২০২২ জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও স্বল্পোন্নত দেশ, ভূবেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ ও উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ রাষ্ট্রসমূহের উচ্চ প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।

মানবাধিকার কাউন্সিল (UNHRC) প্রতিষ্ঠা লাভ করে ১৫ মার্চ, ২০০৬ সালে। জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের সদর দপ্তর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায়। বর্তমানে এর সদস্য দেশ ৪৭টি।


800px-United_Nations_Trusteeship_Council_chamber_in_New_York_City_2.JPG

জাতিসংঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ জাতিসংঘের একটি প্রধান অঙ্গসংস্থা। এটা অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সংশ্লিষ্ট কাজের জন্য ১৪টি জাতিসংঘের বিশেষায়িত সংস্থা, তাদের কার্যকরী কমিশন এবং পাঁচটি আঞ্চলিক কমিশনের মধ্যে সমন্বয়ের কাজ করে। জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের সভাপতির মেয়াদ ১ বছর। গত ২৩ জুলাই, ২০২১ জাতিসংঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের ৭৭তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন মুনির আকরাম।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের মোট সদস্য সংখ্যা ১৫টি। এর মধ্যে স্থায়ী সদস্য ৫টি এবং অস্থায়ী সদস্য ১০টি দেশ।

অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত নগর সিডনিকে দক্ষিণের রানি বলা হয়। দক্ষিণের গ্রেট ব্রিটেন বলা হয় নিউজিল্যান্ডকে। নিউইয়র্ককে বলা হয় বিগ অ্যাপল। আমেরিকা ও এশিয়ার মধ্যবর্তী স্থানের প্রশান্ত মহাসাগরের গভীরতম খাদ হচ্ছে মারিয়ানা ট্রেঞ্চ। যার গভীরতার পরিমাণ ১১,০২২ মিটার।

গোল্ডেন ট্রায়াঙ্গল হল এশিয়ার প্রধান দুটি আফিম উৎপাদন অঞ্চলের একটি। এর আয়তন প্রায় ৯৫০,০০০ বর্গ কিলোমিটার, যা দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার তিনটি দেশ মায়ানমার, লাওস ও থাইল্যান্ডের পাহাড়ি এলাকা জুড়ে বিস্তৃত।

হোয়াংহো নদী চীনে অবস্থিত। এর দৈর্ঘ্য ৫,৪৬৪ কিমি; উৎপত্তিস্থল কুয়েনলুন পর্বত। এটি পতিত হয়েছে পীত সাগরে। হোয়াংহো নদীর তীরবর্তী শহর বেইজিং। হোয়াংহোকে বলা হয় হলদে নদ বা পীত নদী।

আরব উপদ্বীপ পশ্চিম এশিয়ার একটি উপদ্বীপ, যা আফ্রিকার উত্তর পূর্বে অবস্থিত। এটি এশিয়া মহাদেশের বৃহত্তম উপদ্বীপ এবং একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত এবং এটি অঢেল খনিজ তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাসে সমৃদ্ধ হওয়ায় মধ্যপ্রাচ্য ও আরব বিশ্বের ভূ-রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

‘নিকোবর’ হচ্ছে বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত দ্বীপপুঞ্জ, এটি ভারতের ইউনিয়ন টেরিটোরি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জাপান এটি দখল করেছিলো। হরমুজ প্রণালি একটি সরু জলপথ যা পশ্চিমের পারস্য উপসাগরকে পূর্বে ওমান উপসাগর ও আরব সাগরের সাথে সংযুক্ত করেছে এবং আরব উপদ্বীপ থেকে ইরানকে পৃথক করেছে।

ট্রাফালগার স্কয়ার লন্ডনের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত একটি সাধারণ জনগণের মিলনস্থল এবং পর্যটন আকর্ষণ সৃষ্টিকারী স্থান। ১৮০৫ সালে সংঘটিত ব্রিটিশ নৌবাহিনী ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিখ্যাত ট্রাফালগারের যুদ্ধ জয়কে স্মরণীয় করে রাখতে এ নামকরণ করা হয়। সেন্ট হেলেনা আটলান্টিক মহাসাগরে অবস্থিত ব্রিটিশ কলোনী। নেপোলিয়নকে ২য় বার এখানে নির্বাসন দেওয়া হয় এবং ১৮২১ সালে এখানে মৃত্যুবরণ করেন।

জিব্রাল্টার প্রণালি মরক্কো ও স্পেনকে পৃথক করেছে। হরমুজ, দার্দানেলিস ও বসফরাস প্রণালি যথাক্রমে পারস্য উপসাগর–ওমান উপসাগর, ইজিয়ান সাগর-মর্মর সাগর, মর্মর সাগর-কৃষ্ণ সাগরের মধ্যে অবস্থিত।

গ্রিনল্যান্ড হচ্ছে পৃথিবীর বৃহত্তম দ্বীপ। ডেনমার্ক এর মালিকানায় আছে। রাজনৈতিকভাবে এটি ইউরোপ মহাদেশে (ডেনমার্কের অধীনে) কিন্তু ভৌগোলিকভাবে আমেরিকা মহাদেশে অবস্থিত

আয়তনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জলপ্রপাত → নায়াগ্রা জলপ্রপাত। পানি পতনের দিক থেকে বিশ্বের বৃহত্তম জলপ্রপাত → ব্রাজিলে অবস্থিত গুয়ারিয়া। আফ্রিকার বৃহত্তম জলপ্রপাত → ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত জাম্বিয়া ও জিম্বাবুয়েতে অবস্থিত। আফ্রিকার দুটি বিখ্যাত জলপ্রপাতের নাম → স্ট্যানলি ও লিভিংস্টোন।

সুয়েজ খাল মিশরের সিনাই উপদ্বীপের পশ্চিমে অবস্থিত একটি কৃত্রিম খাল। এটি লোহিত সাগরকে ভূমধ্যসাগরের সাথে সংযুক্ত করেছে। ১৮৫৯ সালের ২৪ এপ্রিল খনন কাজ শুরু হয়ে ১৮৬৯ সালে শেষ হয়। ১৮৬৯ সালের ১৭ নভেম্বর এটি প্রথম নৌ চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়। ২৬ জুলাই, ১৯৫৬ মিসরের প্রেসিডেন্ট জামাল আবদেল নাসের জাতীয়করণ করলে ইসরাইল মিশর আক্রমণ করে এবং দ্বিতীয় আরব-ইসরাইল যুদ্ধ সংঘটিত হয়।

বসনিয়া-হার্জেগোভিনা ও সার্বিয়াকে বিভক্তকারী আন্তর্জাতিক নদী দ্রিনা। সার্পিলাকার এ নদীটির দৈর্ঘ্য ৩৪৬ কি.মি.। সমতল অংশে দ্রিনা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৭৫ মিটার উঁচু আর পাহাড়ি অংশে ৪০০ থেকে ৮০০ মিটার উঁচু।

পৃথিবীর উচ্চতম পর্বত শ্রেণি হিমালয়। এর অবস্থান: ভারত, চীন, নেপাল, ভুটান, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, মিয়ানমার ও তাজিকিস্তান। নেপালকে হিমালয়ের কন্যা বলা হয়।

আমেরিকা ও এশিয়ার মধ্যবর্তী স্থানে প্রশান্ত মহাসাগর অবস্থিত। এর গভীরতা ৪,২৭০ মিটার। এর সবচেয়ে গভীরতম স্থান হচ্ছে মারিয়ানা ট্রেঞ্চ। যার গভীরতা ১১,০২২ মিটার।

বৈশ্বিক রাজনীতি ও কূটনীতিতে দুই বা ততোধিক বিবদমান শক্তি বা দেশসমূহের মধ্যে সংঘর্ষ ও সংঘাত এড়ানোর জন্য দু রাষ্ট্র বা শক্তির মাঝখানে যে ক্ষুদ্র রাষ্ট্র সৃষ্টি করা হয় বা বজায় রাখা হয় এবং যা অস্তিত্বশীল, সে রাষ্ট্রকে বাফার রাষ্ট্র বলা হয়। যে রাষ্ট্রের সাথে সাগর, মহাসাগরের কোনো সংযোগ নেই, অন্যসব রাষ্ট্র দ্বারা বেষ্টিত তা স্থলবেষ্টিত রাষ্ট্র। যুদ্ধের সময় নিরপেক্ষ ভূমিকা পালনকারী রাষ্ট্র হলো নিরপেক্ষ রাষ্ট্র। আর জিরো সাম রাষ্ট্র মূলত জিরো সাম গেম, যেখানে প্রতিযোগী দুই দেশের মধ্যে একজনের অর্জন অন্যজনের হারানোর সমান।

কায়রো উত্তর মিশরে (যা নিম্ন মিশর হিসাবে পরিচিত), ভূমধ্যসাগরের ১৬৫ কিলোমিটার (১০০ মাঃ) দক্ষিণে এবং সুয়েজ উপসাগর এবং সুয়েজ খাল থেকে ১২০ কিলোমিটার (৭৫ মাঃ) পশ্চিমে অবস্থিত। শহরটি নীল নদের তীরে অবস্থিত, ঠিক ততদুর দক্ষিণে যেখানে নদী তার মরুভূমি উপত্যকা এবং শাখাগুলিকে নিচু নীল উপত্যকা অঞ্চলে ফেলেছে।

ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে বিরোধপূর্ণ উপদ্বীপ। এটি কৃষ্ণসাগরের উত্তর উপকূলে অবস্থিত। ২০১৪ সালে এই দ্বীপটি রাশিয়া দখল করে নেয়। বর্তমানে এটি রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণাধীন।

আলাস্কা উপসাগর আলাস্কার দক্ষিণে অবস্থিত উত্তর প্রশান্ত মহাসাগরের অংশবিশেষ। উত্তর আমেরিকার প্রশান্ত মহাসাগরীয় উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অধিকাংশ মৌসুমী বৃষ্টিপাতের উৎস এই আলাস্কা উপসাগর।

জর্ডানের একমাত্র সমুদ্রবন্দর আকাবা। মিয়ানমারের সমুদ্রবন্দর সিটওয়ে, ইরাকের সমুদ্রবন্দর বসরা, ইসরাইলের সমুদ্রবন্দর হাইফা।

পুরাতন নামনতুন নাম
সিলোনশ্রীলঙ্কা
শ্যামদেশথাইল্যান্ড
পার্সিয়াইরান
আবিসিনিয়াইথিওপিয়া

‘ম্যাপল পাতার দেশ’ ও ‘লিলি ফুলের দেশ’ বলা হয় কানাডাকে। অন্যদিকে ‘সাদা হাতির দেশ’ থাইল্যান্ড, ‘নিশীথ সূর্যের দেশ’ নরওয়ে এবং ‘ইউরোপের ক্রীড়াভূমি বা ক্রীড়াঙ্গন’ বলা হয় সুইজারল্যান্ডকে।

শ্রীলঙ্কার দক্ষিণ কলম্বোর ১৫০ মাইল দূরে অবস্থিত কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ হাম্বানটোটা গভীর সমুদ্রবন্দর ২০১৭ সালের ডিসেম্বর চীনের নিকট ৯৯ বছরের জন্য শ্রীলঙ্কা সরকার লিজ দেয়। এটি মাগামপুরা মাহিন্দা রাজাপাকসে পোর্ট নামেও পরিচিত। কলম্বো বন্দরের পরে এ বন্দরটি শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় বৃহ্ত্তম সমুদ্রবন্দর।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে আপনার লেখনীগুলো সব সময় আমাকে আকৃষ্ট করে।