চারুকলায় আর্ট প্রদর্শনীতে একদিন (10% beneficiaries for @shy-fox)

2개월 전
কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভাল আছেন।আমিও ভালো আছি। আমার বাংলা ব্লগ পরিবারের সকল সদস্যদের সুস্বাস্থ্য কামনা করে আজ শুরু করছি । শত ব্যস্ততার মাঝেও নিজেকে সময় দেওয়া, নিজের ভাল লাগা। মন ভালো লাগাকে মূল্যায়ন করাকে আমি বেশি প্রাধান্য দেই। আমি গতকাল এ পোস্টে বলেছিলাম ঢাকার জাতীয় জাদুঘরে মুভি দেখতে গিয়েছিলাম। তবে সেখান থেকে ফেরার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় আর্ট প্রদর্শনী চলছিল। রাত হওয়ায় আমরা সেখানে যেতে পারি নাই। আর আমি যেহেতু বরাবর একজন আর্ট প্রেমিক তাই আমার পক্ষে এই আর্ট প্রদর্শনীতে না যাওয়াটা ছিল বেমানান। তাই আজ আর মিস করলাম না। বিকেলবেলা তানিয়া কে সাথে নিয়ে চারুকলা অনুষদে চলে গেলাম। ঢুকতেই আমরা আমাদের দেশের শ্রেষ্ঠ শিল্পী জয়নুল আবেদীন একটি ভাস্কর্য দেখতে পেলাম। এরপরে এক এক করে শিল্পীর সৃজনশীলতার পরিচয় পেতে লাগলাম। আমরা জানি যারা শিল্পী তারা কতটা সম্মানীয় ।একেকটি আর্ট এর পিছনে ভালোবাসা, ভালোলাগা ও অক্লান্ত পরিশ্রম থাকতে হয় । তাদের সৃজনীশক্তি কতটা প্রখর হতে হয়। তাদের প্রতিটি আর্ট এর পেছনে থাকতে হয় অসম্ভব যত্ন, পরিশ্রম ও অধ্যাবসায়। শিল্পী রংতুলিতে তাদের স্বপ্ন বোনে । তারা এত সুন্দর ভাবে তাদের আর্ট গুলো আমাদের মাঝে তুলে ধরেন। দেখে বুঝতেই পারবেন না এগুলো আর্ট করা ।একদম জীবন্ত করে ফুটিয়ে তোলে তাদের রংতুলিতে, পেন্সিলের ডগায় । পৃথিবীতে যুগে যুগে বহু আর্টিস্ট এসেছে যেমন পাবলো পিকাসো, লিওনার্দো দা ভিঞ্চি বাংলাদেশের এস এম সুলতান জয়নাল আবেদীনের মত অসাধারণ কিছু শিল্পী যাদের আমরা পেয়েছি। ভুলি নি আমরা সেই মোনালিসার কথা, তার ভুবন ভুলানো হাসি আজও রহস্যময় ।আমাদের মনে আছে ৪৩ এর দুর্ভিক্ষের জয়নুল আবেদীন সেই অনবদ্য আর্ট এখনো হাজারো মানুষকে কাঁদায়। যুগে যুগে বহু আর্টিস্ট আমাদের মাঝে এসেছেন এখনও আছে ভবিষ্যতেও থাকবে। তাদের সৃষ্টিশীলতা, সৃজনশীলতা আমাদের তৃপ্তি দান করবে। আমি যেগুলো আর্ট আজ আপনাদের সামনে শেয়ার করব সেগুলো চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীদের নিজ হাতে করা অসাধারণ,অনবদ্য,সৃষ্টিশীলতার পরিচয় বহন করে ।চলুন আপনাদের সাথে ধারাবাহিকভাবে দেখানো যাক। আমার তোলা ফটোগ্রাফি ।

20150101_190923.jpg
এই ছবিটি সদরঘাটের চিরাচরিত একটি রূপ যদিও বর্তমানে এই রুপ আর নেই। তবে একটা সময় সদর ঘাটের অবস্থা ছিল এরকম।শিল্পী সেই সদরঘাট পূর্বের রুপ আর্ট করেছেন।

20150101_190942.jpg

এই আর্ট আমার ভাল লেগেছে ।এটি পুরান ঢাকার একটি গলির ছবি।
20211126_014158.jpg
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের চিত্রটি গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে করা হয়েছে।
20211126_014136.jpg
বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের চিত্রটির গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে
20211126_014108.jpg
এই আর্টে একটি মেয়েকে মাক্স পরিহিত অবস্থায় অঙ্কন করা হয়েছে ।এত সুন্দর ভাবে একটি মেয়েকে রং তুলিতে ফুটে তোলা হয়েছে দেখে আমি মুগ্ধ।
20211126_014047.jpg
ছবিতে আপনার যে ব্যক্তিকে দেখতে পাচ্ছেন তিনি হচ্ছে এস এম সুলতান। তিনি চারুকলার প্রান্তরে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছেন সেই অবস্থায় তার চিত্র অঙ্কন করা হয়েছে ছবিটি একটি জীবন্ত এস এম সুলতান মনে হচ্ছে।
20211126_014030.jpg
এই চিত্র তেও এস এম সুলতান কে অনবদ্যভাবে অংকন করা হয়েছে তিনি চারুকলার প্রান্তরে বসে ছবি আঁকছেন সে অবস্থায় আর্ট করা হয়েছে।
20211126_014000.jpg
বিখ্যাত চিত্রশিল্পী লিওনার্দো দা ভিঞ্চির সেই বিখ্যাত চিত্র মোনালিসার ভুবন ভুলানো হাসি ।যা এখনো মানুষকে মাতিয়ে তোলে। তার রহস্য এখন মানুষকে তার দিকে টানে ।সেই মোনালিসা ছবিটি সম্ভবত গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে করা হয়েছে।
20211126_013724.jpg
এই ছবিটি বাঙালি বধুর চিত্র। যার কপালে সিঁদুর ,পরনে বেনারসি শাড়ি ,হাতে চুরি হুবহু দেখতে একজন প্রকৃত বাঙালী নারীর মতো করে অঙ্কন করা হয়েছে। ছবিটি আমার ভীষণ ভালো লেগেছে। কত সুন্দর ভাবে একজন শিল্পী তার রংতুলিতে আবিষ্কার করেছে।
20211126_013232.jpg
এই চিত্রগুলো আমাদের কিছু প্রিয় মুখ যেমন অভিনেতা, খেলোয়াড় ,শিল্পীদের আর্ট করা হয়েছে
20211126_013047.jpg

এই আর্ট একজন গরীব ,অসহায় মানুষের ।যার চিত্র সুন্দরভাবে অঙ্কন করা হয়েছে। যার মাথায় থাকে গামছা ।ছবিটি অনেক সুন্দর হয়েছে।
20211126_014404.jpg
উপরের দুটি ছবির মাধ্যমে আমরা গ্রামের মানুষের প্রত্যাহিক জীবনযাপনের গল্প জানতে পারি । এই চিত্রটিতে একজন মহিলা দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় জিনিস গুলো বিক্রি করছে আর একজন সেগুলো কিনছে। সত্যি কথা বলতে ছবিতে সবকিছু এমন ভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে যেন বাস্তব।
20211126_014335.jpg
উপরের ছবিগুলোতে কিছু অভিনেতা চিত্রশিল্পী ও কিছু গুরুত্বপূর্ণ মানুষের স্কেচ আর্ট ও গ্রামের চিত্র আর্ট করা হয়েছে। ছবিগুলো অনেক সুন্দর হয়েছে, মনকাড়া হয়েছে।
20211126_014318.jpg
এই ছবি গুলো আমার অনেক ভালো লেগেছে। বিশেষ করে চাঁদের আলোর সাথে ডাইনোসরের ছবি।

20211126_014255.jpg

20211126_014232.jpg
এখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল ও টিএসসি সহ বিভিন্ন ছবি আর্ট করা হয়েছে তা দেখতে অসম্ভব সুন্দর লাগছে।
20211126_013921.jpg
এই ছবির বিশেষত্ব বোঝার জন্য আমি কয়েক মিনিট তাকিয়ে ছিলাম ।আমি মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে ছিলাম। এই ছবিটি অসাধারণ ভাবে আর্ট করা হয়েছে।
20211126_013903.jpg
ছবিটি চারুকলা অনুষদের একটি জায়গার ছবি যেখানে গাছপালাকে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।
20211126_013846.jpg

20211126_013830.jpg
উপরের ছবি দুইটি একটি গ্রামের প্রতিনিধিত্ব করে ।গ্রামের সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ি, দৈনন্দিন জীবনের কাজ ,রাস্তাঘাট বাস্তব রূপে ফুটিয়ে তুলেছে ।
20211126_013805.jpg

20211126_013705.jpg
উপরের ছবি ২টি মেয়েদের কলঙ্ক মাখা জীবনের গল্প বুঝাতে তুলে ধরা হয়েছে সমাজে মেয়েদের যে অবহেলা চোখে দেখা হয় তারই প্রতিচ্ছবি তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া নদী- নৌকা ,চারুকলা অনুষদের কিছু ছবি সহ বিভিন্ন দৃশ্য অঙ্কন করা হয়েছে
20211126_013643.jpg
এই ছবিগুলোতে একজন নারীর বন্দি জীবনের গল্প ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। পুরুষশাসিত সমাজে তাদের কিভাবে শিকল বন্দি করা রাখা হয়েছে ,তাদের স্বাধীনতা কিভাবে খর্ব করা হয়েছে তার দৃশ্য শিল্পীর রংতুলিতে ফুটে উঠেছে ।এছাড়াও নারীর মায়াবী চোখ অংকন করেছে। শিল্পী তার সৃজনশীল শক্তি দিয়ে।
20211126_013615.jpg
এই ছবিটি আমাদের গ্রামের শখের বসে যারা কবুতর লালন করে সেই সৌখিন মানুষদের কথা বলা হয়েছে তারা । কবুতরগুলো যেন দেখতে বাস্তব হয় সেই ভাবে তুলে ধরা হয়েছে।
20211126_013559.jpg
উপরের ছবিটি গ্রামের মানুষের রান্না করার একটি দৃশ্য। ছবিটি এমন ভাবে জীবন্ত করে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে জেনো না দেখে বোঝার উপায় নাই এটি আর্ট করা ।গ্রামের মানুষগুলো এভাবেই খড়কুটো দিয়ে মাটির চুলায় রান্না করে ।বিশেষ করে আমাদের উত্তরবঙ্গের মানুষগুলো।
20211126_013518.jpg

20211126_013448.jpg
উপরের ছবিটি দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে ছিলাম কত সুন্দর ভাবে শিল্পিতার রংতুলিতে অংকন করেছে। এই মনমুগ্ধকর ছবিগুলো প্রথম অবস্থায় দেখে মনে হয়নি এগুলো আর্ট করা। মনে হচ্ছে ফটোগ্রাফি করে ছবি দিয়েছে ।এখানে আমি হাত দিয়ে দেখলাম এত সুন্দর ভাবে শিল্পী তার সৃজনশীলতা ফুটিয়ে তুলেছে যা এই আর্ট গুলো না দেখলে বোঝা যেত না।

20211126_013030.jpg

এই ছবিটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের একটি ছবি শিল্পী তাঁর এই দৃশ্যটি খুব চমৎকারভাবে নিখুঁত করে অংকন করেছে।

জয়নুল আবেদিন শিল্পিদের নিয়ে একটি উক্তি করেছেন - সুন্দর রুচিশীল ও সৎ জীবন, শৈল্পিক জীবন।

আমার তোলা সব ছবির w3w location

আর্ট প্রদর্শনীচারুকলা, ঢাবি
photo by@abidatasnimora
CameraSamsung galaxy S6

3W72119s5BjVs3Hye1oHX44R9EcpQD5C9xXzj68nJaq3CeJJwaZsefPk1zN6fEAs7MdkdJfudjGmTTgEGoGzxsz4JfVM6eKjD5LC9K3xQyuVYFwkWACxsp.png

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

চারুকলা আর্ট প্রদর্শনীতে আমি কখুনো যায়নি।আপনার পোস্ট পরে এবং চিত্র গুলো দেখে অনেকটা ধারনা পেয়ে গেলাম।খুবই ভালো হয়েছে চিত্রগ্রহন।আর খুব গুছিয়ে লিখেছেন আপু শুভ কামনা রইলো।

অসাধারণ আপু। আমি মাঝে মাঝে অবাক হয়ে যায় এই চিএশিল্পিদের কথা ভাবলে। তাদের সৃষ্টিকর্মগুলো যে কত সুন্দর কতটা অবাক করা তা বলে বোঝানো যাবে না।

এবং এখানকার প্রত‍্যেকটা চিএ এক কথায় অতুলনীয়। আর হবে বাহ না কেন এগুলো তো দেশসেরা সব শিল্পীদের কাজ। ইরফান খান আমার খুবই প্রিয় একজন অভিনেতা। তার ছবিটি অসাধারণ লাগছে।।
এবং আপনার সুন্দর উপস্থাপনা। সবমিলিয়ে দারুণ পোস্ট ছিল আপু।।।

চারুকলায় আর্ট প্রদর্শনীতে গুলো আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। সাথে সুন্দর করে উপস্থাপন করেছে।
বিশেষ করে কাজীনজরুল ইসলামের ফটো টা আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে।
শুভকামনা রইল।

চিত্র প্রদর্শনীর দেখতে আমার খুবই ভালো লাগে। আপনার ছবিগুলো দেখে দুধের স্বাদ ঘোলে মিটালাম।

অবশ্যই প্রথমে ধন্যবাদ দিতে চাই সেই সকল মেধাবী চিত্রশিল্পীদের যারা অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে এই চিত্রগুলো এঁকেছেন। আমি ছোট থেকেই আটঁ এর পাগল। আপনার তুলা ছবিগুলো দেখে সত্যি মন ভরে গেছে। ছবির সাথে সাথে ছবির বর্ণনা দারুন ছিল।

প্রত্যেকটি ছবি অসাধারণ ও দুর্দান্ত।একজন শিল্পী তার রংতুলি তে কতটা নিপুনতা ও মনের ভাব প্রকাশ করা যায় তা সম্পূর্ণ যত্ন সহকারে ফুটিয়ে তুলেছেন।সত্যিই আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে এবং জ্বলন ও জীবন্ত ছবি বলে মনে হয়েছে।আপনি খুব সুন্দর ব্যাখ্যা করেছেন আপু।ধন্যবাদ আপনাকে।

কি অসাধারণ এক একটি আর্ট আপু!
মানুষের হাতে মনে হয় জাদু থাকে।
জাদু ছাড়া এও সম্ভব!
জাস্ট অসাধারণ!!

·

এমদম ঠিক বলেছেন আপু৷

আমার খুব ইচ্ছা ঢাকা ইউনিভার্সিটির চারুকলা ইনস্টিটিউটের যেয়ে ছবি দেখা, আপনি দিয়েছেন যাই হোক অনেক ভালো লাগলো ওরা আপু।

·

ধন্যবাদ আপনাকে । শুভকামনা শুভকামনা রইল আপনার জন্য।