আমার বাংলা ব্লগঃরেসিপি–আতপ চালের আটা দিয়ে সরু পিঠা(ক্ষীর) তৈরির পদ্ধতি

2개월 전

||আজ-১৪ই ভাদ্র, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,শরৎকাল||
||২৯শে আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ||
রবিবার

আসসালামু আলাইকুম
আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি।পোস্ট শুরু করার আগেই আমি ক্ষমা চেয়ে নিতে চায় আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটির অ্যাডমিন @rme দাদা এবং মডারেটর ভাইদের কাছে।আমি প্রতিদিন আমার পোস্টের ধারাবাহিকতার কথা দিয়েছিলাম।কিন্তু গত দুই দিন অসুস্থ ও মানসিক হতাশাগ্রস্তের জন্য কোন পোস্ট করতে পারে নি।তাই আজকে আমার তিনটি পোস্ট করার ইচ্ছা আছে ইনশাআল্লাহ।আশা করছি আপনারা ব্যাপারটা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং সাপোর্ট করে আমার পাশে থাকবেন।

তো চলুন কথা না বাড়িয়ে আজকের পোস্ট শুরু করা যাক।টাইটেল দেখেই আপনারা হয়তো বুঝতে পেরেছেন আজকের রেসিপিটা কি হতে চলেছে।হ্যাঁ,বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের সামনে মিষ্টি জাতীয় খাবার সরু পিঠা নিয়ে হাজির হয়েছি।গ্রামাঞ্চলে সাধারণত একে ক্ষীর নামে অভিহিত করা হয়।আশা করি আপনাদের এই রেসিপিটা ভালো লাগবে।

সরু পিঠা

20210829_084624-1.jpg

সরু পিঠা বা ক্ষীর তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণাদির নাম নিম্নে দেওয়া হলোঃ

১.আতপ চালের আটা
২.নারিকেল ঝুরি
৩.চিনি
৪.লবণ
৫.এলাচ
৬.দুধ

নিম্নে ক্ষীর বা সরু পিঠা তৈরির প্রক্রিয়াটি ধাপে ধাপে দেওয়া হলোঃ

পিঠাটি তৈরির জন্য প্রথমে আটা দিয়ে পিঠার শেপ টা তৈরি করে নিতে হবে।

ক্ষীর বা সরু পিঠার শেপ তৈরিঃ

প্র‍থম ধাপঃ
প্রথমে চুলায় হাড়ি বসিয়ে এতে পরিমাণমতো পানি ঢালতে হবে।এবার পানি হালকা গরম হবার পর পানিতে সামান্য লবণ দিতে হবে।এবার আতপ চালের আটাগুলো পানির ভিতর ঢেলে চামচ দিয়ে নাড়তে হবে।এবার হাড়ির ভিতরে এক মিনিট রাখার পর নিম্নে ছবির মতো দেখাবেঃ-

20210828_174949.jpg(একে আটা খামীর করা বলে)

ধাপঃ২
এবার খামীর করা আটাগুলো একটি গামলায় ঢেলে নিতে হবে।তারপর আটাগুলো হাতদিয়ে ভালোভাবে ছানতে হবে।
20210828_175126.jpg

20210828_175643.jpg(ছানার পরের অবস্থা)

ধাপঃ৩
এবার ছানাকৃত আটাগুলো ছবির মতো গোল করে লম্বা করে নিতে হবে।তারপর সেই আটাগুলো আরো সরু করে নিতে হবে।

20210828_181018.jpg

20210828_180611.jpg

ধাপঃ৪
এবার নিম্নের ছবির ন্যায় আটাগুলো কেটে পিঠা আকৃতি করে নিতে হবে।

20210828_182437.jpg

20210828_182403.jpg

20210828_191419.jpg

এবার নারিকেল এর ঝুরি তৈরি করে নিতে হবে।

20210828_184018.jpg

20210828_190804.jpg

পিঠা তৈরির জন্য সকল সরঞ্জামাদি এখন প্রস্তুত।এবার চলুন রান্নার কাজ শুরু করা যাকঃ

ধাপঃ৫
রান্নার জন্য প্রথমে কড়াইয়ে দুধ দিয়ে গরম করে নিতে হবে।এবার দুধের ভিতর দুটো এলাচ ফল ছেড়ে দিতে হবে।এরপর পর্যাক্রমে নারিকেল এর ঝুরি,চিনি এবং লবণ দিয়ে দুধ ফুটে উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

20210828_192319.jpg

20210828_192637.jpg(নারিকেল ঝুরি,চিনি দেওয়ার পর)

ধাপঃ৬
এবার ছবি ন্যায় দুধ চিনির মিশ্রণ ফুটতে শুরু করলে এর ভিতর পূর্বে ক্ষীর তৈরির জন্য সরু করে রাখা আটাগুলো ছেড়ে দিতে হবে।
20210828_192817.jpg(দুধের মিশ্রণ ফুটে উঠার সময়।এতে প্রায় ৩-৪ দিন সময় লাগে)

20210828_193410.jpg(সরু করে রাখা আটা ছাড়ার পর)

এবার মাত্র কয়েকমিনিট চুলার উপর রাখলেই তৈরি হয়ে যাবে সুস্বাদু এবং মজাদার সরু পিঠা।

20210828_194130.jpg

20210829_085038.jpg(sorry for sunlight)

এই ছিল আমার আজকের রেসিপি।আপনারা যারা মিষ্টিজাতীয় খাবার খেতে পছন্দ করেন তাদের আমি সাজেস্ট করবো অবশ্যই একবার বাসায় তৈরি করে খাবেন।আর খাবার পর কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন।এটি গ্রাম-বাংলার একটি প্রচলিত পিঠা।তাই পিঠা বা ক্ষীর খাওয়ার সাথে সাথে গ্রামের একটি স্মৃতিচারণও করে নিতে পারবেন।

অবশেষে সকল্কে ধন্যবাদ দিতে চায় কষ্ট করে আমার এই পোস্টটি পড়ার জন্য।পোষ্ট শেষে কমেন্ট এবং সাপোর্ট করতে ভুলবেন না

ধন্যবাদ @abir10

স্বাগতম

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

এই প্রথমবার এমন একটা রেসিপি দেখলাম যেটা কখনো আমাদের বাসায় বা এলাকায় তৈরি করেনি। এই রকম রেসিপি আমাদের সামনে উপস্থাপনা করার জন্য আপনাকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ।

·

ধন্যবাদ ভাই...এবার তাহলে খুব তাড়াতাড়ি বাসায় তৈরি করে ফেলুন।

খুবই লোভনীয় খাবার। এটা আমি খেতে ভীষণ পছন্দ করি । যাইহোক আপনাকে ধন্যবাদ সুন্দর করে উপস্থাপন করার জন্য। চেষ্টা করুন ইংগেজমেন্ট বাড়ানোর জন্য এবং কমিউনিটির অন্যদের পোস্ট পড়ুন এবং কমিউনিটির ডিসকর্ড সার্ভারে একটিভ থাকুন ধন্যবাদ।

·

ধন্যবাদ ভাইয়া...আপনারও এটি প্রিয় খাবার শুনে খুশি হলাম।ভাইয়া আমি আমার সর্বাত্মক চেষ্টা করি ডিসকর্ড সার্ভারে এক্টিভ থাকার এবং এই কমিউনিটি তে ভালো কিছু পোস্ট করার।আপনি হয়তো দেখে থাকবেন আমি শুধু এখানেই পোস্ট করি এবং আমার বিশ্বাস একদিন আমার বাংলা ব্লগ থেকেই আমি কিছু করবো ইনশাআল্লাহ।