আমার বাংলা ব্লগঃরেসিপি– মিষ্টি কুমড়ো ফুলের মুচমুচে পাকোড়া (Crunchy pumpkin flowers pakora)

2개월 전

আজ ১৬ই ভাদ্র, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,শরৎকাল
৩১শে আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,মঙ্গলবার

আসসালামু আলাইকুম
আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি।আজকে আমি আপনাদের সামনে একটি মজার রেসিপি নিয়ে হাজির হয়েছি।ব্যাক্তিগত ভাবে এটি আমার কাছে খুবই প্রিয় এবং এর রান্নার প্রক্রিয়াটাও তুলনামূলক সহজ।তো প্রিয় ভাই ও বোনেরা চলুন আর কথা না বাড়িয়ে রেসিপিটির আদ্যোপান্ত(শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত) জেনে নেওয়া যাক।

মিষ্টি কুমড়ো ফুলের পাকোড়া

20210829_082739.jpg

রেসিপিটি তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণাদির নাম নিম্নে দেওয়া হলোঃ
১.মিষ্টি কুমড়ার ফুল
২.ময়দা
৩.মরিচ
৪.পেঁয়াজ
৫.জিরা
৬.ধনিয়ার গুড়া
৭.লবণ
৮.হলুদের গুড়া
৯.তৈল

নিম্নে রেসিপিটি তৈরির প্রস্তুতপ্রণালী ধাপে ধাপে দেওয়া হলোঃ

প্রথম ধাপঃ
প্রথমে কুমড়ার ফুলের পিছনের ডাটা অংশ কেটে ভালোভাবে পানি ধুয়ে নিতে হবে।

20210829_080054.jpg

দ্বিতীয় ধাপঃ
এবার একটি গামলায় ফুলের সংখ্যা অনুযায়ী পরিমাণমতো আটা নিতে হবে।এরপর জিরা,কাচা মরিচ,পেঁয়াজ একসাথে বেটে নিতে হবে।এরপর লবণ,হলুদের গুড়া,ধনিয়ার গুড়া দেওয়ার পর হালকা কিছু পানি দিয়ে ভালোভাবে মিক্স করে নিতে হবে।

20210829_080417.jpg

20210829_080655.jpg

তৃতীয় ধাপঃ
এবার কড়াইয়ে পরিমাণমতো তৈল নিতে হবে।
20210829_080447.jpg

চতুর্থ ধাপঃ
তৈল হালকা গরম হবার পর ধুয়ে রাখা কুমড়ার ফুলগুলো মিক্স করা আটা ভিতর এক এক করে পর্যাক্রমে ডুবিয়ে নিতে হবে।এরপর হালকা গরম তৈলের ভিতর ছেড়ে দিতে হবে।

20210829_080943.jpg

20210829_081456.jpg

পঞ্চম ধাপঃ
এবার রেসিপিটির কালার বাদামী হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।বাদামী কালার হবার পর তা কড়াই থেকে উঠিয়ে প্রিচে বা অন্য কোন পাত্রে তুলে রাখতে হবে।

20210829_082029.jpg

20210829_082807.jpg

20210829_083020-1.jpg

এবার মিষ্টি কুমড়ার মচমচে সুস্বাদু ফুল ভাজি পরিবেশনের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত।এটি আপনারা বিকেলে হালকা নাস্তা বা ভাতের সাথে খেতে পারবেন।
আমরা ভোজন প্রিয় বাঙালি তাই বিকেলে নাস্তা বা সন্ধ্যায় চায়ের সাথে গরম পাকোড়া হলে যেন বিষয়টি জমে যায়।তাছাড়া মিষ্টি কুমড়ার ফুলের অনেক ঔষধি গুণাগুণ রয়েছে।এতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন A এবং ভিটামিন C।যা আমাদের চোখ,চুল এবং ত্বকের জন্য খুবই উপকারী।তাই আপনারা বাসায় সুস্বাদু মচমচে এই রেসিপিটি একবার ট্রাই করে অবশ্যই দেখবেন এবং কমেন্ট করে আপনার মন্তব্য জানাবেন।

সবিশেষে আমি আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা @rme দাদা, শ্রদ্ধেয় মডারেটরগণ এবং মেম্বর সকলকে আমি ধন্যবাদ দিতে চায় এই কমিউনিটিতে মেধা এবং শ্রমের সাথে কাজ করার জন্য।আমিও এই কমিউনিটির একজন সাধারণ মেম্বর হয়ে নিজেকে খুব সৌভাগ্যবান মনে করি।আশা করি আপনাদের সাপোর্ট এবং ভালোবাসায় অনেকদূর পর্যন্ত যেতে পারবো।ধন্যবাদ

পোষ্ট সম্পাদনকারীঃ@abir10

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

ওয়াও,রান্না টা বেশ মজার হয়েছে বোঝা যাচ্ছে

আমিও একদিন তৈরি করবো দেখি কেমন স্বাদ
আপনাকে ধন্যবাদ অনেক সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন

·

জ্বী ভাই..অবশ্যই একদিন ট্রাই করবেন।এটি শুধু সুস্বাদুই না এর অনেক উপকারী দিকও আছে।তো সব দিক বিবেচনায় পারফেক্ট একটা খাবার।ধন্যবাদ❤️

মিষ্টি কুমড়া অনেক খেয়েছি। কিন্তু এর ফুল দিয়ে যে এইরকম পকোড়া তৈরি করা যায় সেটা আগে জানা ছিল না। খুব সুন্দর হয়েছে ভাই।।

·

ধন্যবাদ ভাই...তাহলে এবার আর দেরি না করে নতুন রেসিপিটি ট্রাই করে ফেলুন।আশা করি নিরাশ হবেন না।

·
·

হুম চেষ্টা করব🙂🙂

মিষ্টি কুমড়া দিয়ে এরকম পাকোড়া আমি জীবনে প্রথম দেখলাম। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ এরকম একটি রেসিপি আমাদের সামনে তুলে ধরার জন্য। আমি অবশ্যই বাসায় ট্রাই করে দেখবো।

·

অবশ্যই ভাইয়া...রেসিপিটা তৈরির পর কেমন লাগবো জানাবেন কিন্তু।ধন্যবাদ❤️

·
·

অবস্বই জানাবো।

পাকোড়া খেয়েছি, তবে এই ভাবে খাওয়া হয়নি। সুন্দর করে বানিয়েছেন। আমার ভালই লাগলো। শুভেচ্ছা রইলো আপনার জন্য।

·

ধন্যবাদ আপু...এভাবে একবার ট্রাই করতে পারেন।সময়ও কম লাগে আবার খেতেও অনেক সুস্বাদু।