বিভিন্ন ঋতুতে স্নিগ্ধ সকালের রূপ

25일 전

2021-09-26-16-21-44-344.jpg

received_4625971284090800.jpeg

সকালের প্রকৃতি অনেক শান্ত এবং মনোমুগ্ধকর। খুব সকাল বেলা মানুষ সাধারণত ঘুম থেকে কম ওঠে। প্রকৃতি এ সময় নীরব থাকে। সকালবেলার নিরব প্রকৃতি আকৃষ্ট করে সবাইকে। সকালের আবহাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। সকালের সুন্দর আবহাওয়া মন এবং শরীরকে চাঙ্গা করে তোলে।

ঋতুভেদে বিভিন্ন সময়ে সকালের আবহাওয়া বিভিন্ন রূপ ধারণ করে। গ্রীষ্মের কাঠফাটা রোদের দিনে ও সকালের আবহাওয়া থাকবে নিরব এবং শীতল। যদিও বা এই শীতলতা খুব একটা বেশি সময় থাকেনা। একটু বেলা গড়ালেই আকাশে কাঠফাটা রোদ ওঠে। বর্ষাকালে বেশিরভাগ দিনের সকালটা হয় বৃষ্টিময়। আর শীতের সকালটা থাকে হিমশীতল। লোকজন বাড়ি থেকে বেরোতেই পারে না শীতের তীব্রতার জন্য। তবে যারা শীত উপেক্ষা করে সকালের আবহাওয়ায় বের হয়,তারা শীতের সকালের সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারে। শীতের সকালে ঘাসের উপর পড়ে থাকা শিশির বিন্দু, সকাল বেলার খেজুরের রস, আর সকালবেলার পিঠা উৎসব তো আছে। সব মিলে শীতের সকাল টা তীব্র শীতের হলেও কিছুটা প্রশান্তি তো আছেই। ঋতুরাজ বসন্তকালে সকালের সৌন্দর্য সবচেয়ে বেশি উপভোগের। এ সময় শীত এবং গরমের মাঝামাঝি একটা অবস্থা বিরাজ করে। অর্থাৎ নাতিশীতোষ্ণ আবহাওয়া বিদ্যমান থাকে।

সকালবেলা আবহাওয়া আমাদের মন এবং দেহ উভয়ের জন্য বেশ উপকারী। এছাড়াও খুব সকালে ঘুম থেকে উঠলে আমরা আমাদের দিনকে দীর্ঘ করতে পারে। সকালে আবহাওয়া উপরওয়ালার এক প্রকার রহমত বিদ্যমান থাকে। এজন্য আমাদের সকল ধর্মের মানুষের নিজ নিজ ধর্মের পবিত্র কাজ দিয়ে সকালটা শুরু করা উচিত।

received_923090778418003.jpeg

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

শীতকাল আমার একটি প্রিয় ঋতু। খুব চমৎকার লিখেছেন আপনি। শীতের সকালে ধোঁয়া উঠা ভাপা পিঠা খেতেও কিন্তু ভারী মজা। তবে আপনার লেখাগুলো পড়ে ইংরেজির দুটি চরণ মনে পড়ে গেলো,

Early to bed and early to rise ,
makes a man healthy, wealthy, and wise

শীতকালের মতো মজার সময় আর হয় না। শীতের সময় অনেক ধরনের পিঠা বানানো হয়।আমারও প্রিয় ঋতু শীতকাল। আপনার ছবি গুলো অসাধারণ ছিলো সাথে আপনার উপস্থাপনা টাও।আপনার জন্য শুভ কামনা

গ্রীষ্ম আর শীতের মাঝে শরৎ কালটা সত্যিই উপভোগ্য। তবে তুমি লেখার পরিমান আরো বাড়াও, ডেইলি ডাইরি লিখলে কমপক্ষে ৩০০ শব্দ লিখতে হবে আর ৬ টি ছবি অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে।

সুন্দর ফটোগ্রাফি করেছেন আলোচনা ও করেছেন ভালোই তবে আলোচলা কমপক্ষে ৩০০শব্দের হতে হবে আর অবশ্যই w3w link দিতে হবে।