আমার বাংলা ব্লগ। ফুলকপি,সিম,আলু দিয়ে রুই মাছের রেসিপি। ১০% পে-আউট লাজুক খ্যাক এর জন্য।

2개월 전
আমার বাংলা ব্লগের, সকল শুভাকাঙ্ক্ষীকে জানাই আসসালামু আলাইকুম। আশাকরি সকলে ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ার বরকতে ভালো আছি। আজকে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার রুই মাছের দিয়ে ফুলকপি,সিম,আলু দিয়ে রুই মাছের একটা রেসিপি।

আর দেরি না করে চলুন যাওয়া যাক মূল পর্বে।

আমাদের দেশ ষড়ঋতুর দেশ তাই আমরা প্রতি দুই মাস পর পর নতুন ঋতুর স্বাদ উপভোগ করে থাকি। ষড়ঋতুর মধ্যে শীতকাল আমার সবচেয়ে প্রিয়। শীতকালে প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি হয়। এবং খেতেও খুবই মজা। তারই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আমি আজকে আপনাদের সামনে নিয়ে আসলাম ফুলকপি সিম আলু দিয়ে রুই মাছের রেসিপি। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। আর আমি মাংসের চাইতে সবজি এবং মাছটা একটু বেশি পছন্দ করি। মাংস সব সময় খাওয়া যায় না। কিন্তু মাছটা বাঙালিরা একটু বেশিই খায়। তাইতো বাঙালি কে বলে মাছে ভাতে বাঙালি।

ফুল কপি সিম আলু দিয়ে রুই মাছের রেসিপি।

IMG_20211125_215233_656.jpg

ফুলকপি সিম আলু দিয়ে রুই মাছের রেসিপি তৈরি করে আমি একটা সেলফি নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


শীতের দিনে সাত সকাল বেলায় যদি বাজারে যাই। তখন ইচ্ছে করে টাটকা সবজি গুলো কাঁচা চিবিয়ে খাই। আর টাটকা সবজি গুলো দেখতে খুবই সুন্দর লাগে যা বলে বোঝানোর মত নয়। সবজি বিক্রেতারা সবাই যে যার মতো করে নিয়ে আসে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ফুলকপি সিম আলু দিয়ে রুই মাছের রেসিপি উপকরণ।

IMG_20211125_203431_738.jpg
  • ফুলকপি 250 গ্রাম।
  • সিম ২০০ গ্রাম।
  • আলু ২ পিচ
  • কাঁচা মরিচ ১ চা চামচ।
  • পেঁয়াজ কুচি ২ পিচ।
  • হলুদ ১ চা চামচ।
  • মরিচের গুঁড়ো ১ চা চামচ।
  • রসুন বাটা দেড় চামচ।
  • পেঁয়াজ বাটা ২ চামচ।
  • ধনিয়ার গুড়া ১ চা চামচ।
  • আদা বাটা ১ চা চামচ।
  • লবণ পরিমান মত।
  • ধনিয়া পাতা কুচি পরিমাণমতো।

FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১

IMG_20211125_203146_243.jpg

এখানে চুলায় কড়াই বসালাম এবং কড়াইতে তেল গরম করতে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২

IMG_20211125_203219_346.jpg

মাছগুলো ধুয়ে পরিষ্কার করে নিলাম এবং লবণ এবং হলুদ দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৩

IMG_20211125_203251_421.jpg

এখন আমি মাছ গুলোকে হলুদ লবণ দিয়ে ভালো করে মেখে নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৪

IMG_20211125_203346_053.jpg

কড়াইতে তেল গরম হয়ে গেছে। এখন আমি মাছ গুলোকে বাজার জন্য একে একে ছেড়ে দেবো।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৫

IMG_20211125_203758_407.jpg

মাছগুলো আমি তেলে ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৬

IMG_20211125_204024_601.jpg

এখানে আমার মাছগুলো বাজা হয়ে গেছে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৭

IMG_20211125_204257_711.jpg

এখন আমি মাছগুলোকে উঠিয়ে আলাদা পাত্রে রেখে দেবো।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৮

IMG_20211125_204638_424.jpg

এখানে চুলায় একটা পাত্র বসালাম। এখন মাছ গুলো বাজার যেই তেল গুলো ছিল সেগুলো সাথে আরও কিছু তেল দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৯

IMG_20211125_204743_118.jpg

তেল গরম হওয়ার পর আমি কাঁচা মরিচ পেঁয়াজ কুচি ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১০

IMG_20211125_204842_066.jpg

এখানে আমি সবগুলো মসলা দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১১

IMG_20211125_204936_777.jpg

এখানে আমি মসলাগুলো ভালো করে ভেজে নিচ্ছি।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১২

IMG_20211125_205207_745.jpg

এখানে মসলা গুলো মধ্যে এক কাপ পরিমান পানি দিয়ে আমি মসলাগুলো ভালো করে কষিয়ে নেব।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৩

IMG_20211125_205255_484.jpg

এখানে আমার মসলাগুলো কষানো হয়ে গেছে। কষানো মসলার ভিতরে আমি ভাজা মাছ গুলো দিয়ে দিব এবং আরো ভালো করে মাছ গুলো এখন কসাবো।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৪

IMG_20211125_205958_562.jpg

মাছগুলো ভালো করে কষানো হয়ে গেছে। এখন মাছ গুলো আলাদা পাত্রে আবার রেখে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৫

IMG_20211125_204408_487.jpg

এখানে ফুলকপি কেটে পরিষ্কার করে নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৬

IMG_20211125_204358_051.jpg

এখানে সিম কেটে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৭

IMG_20211125_204402_496.jpg

এখানে দুইটা আলু কেটে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৮

IMG_20211125_210451_572.jpg

এখানে মাছ কষানো ঝোলগুলোর মধ্যে এখন আমি ফুলকপিগুলো ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১৯

IMG_20211125_210523_095.jpg

এখানে আমি একে একে সবগুলো সবজি ছেড়ে দিলাম কসানোর জন্য।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২০

IMG_20211125_211107_892.jpg

আমার তরকারি গুলো কষানো হয়ে গেছে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২১

IMG_20211125_211642_998.jpg

এখন আমি বেশি করে পানি দিয়ে দিলাম তরকারি গুলো ভাল করে সিদ্ধ করার জন্য।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২২

IMG_20211125_212416_961.jpg

এখানে তরকারি ভাল করে সিদ্ধ হয়ে গেছে। এখন আমি উপরে মাছগুলো ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২৩

IMG_20211125_213059_750.jpg

এখানে তরকারি গুলো অনেকটা হয়ে গেছে। তরকারির ঝোল টা আরেকটু কমলে তখন আমি নামিয়ে নেবো। নামানোর আগে ধনেপাতা কুচি টা দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২৩

IMG_20211125_213818_337.jpg

এখানে দেখতে পাচ্ছেন আমার রেসিপিটি সম্পন্ন হয়ে গেছে। ঝোলটা অনেকটা কমিয়ে ফেলেছি এখন পরিবেশনের পালা।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


এটা সম্পূর্ণ আমাদের বাঙ্গালীদের একটা রেসিপি। আশা করি আমার সকল বন্ধুদের কাছে ভালো লাগবে। সাপোর্ট দিয়ে পাশে থাকবেন এবং আরো যাতে সুন্দর সুন্দর রেসিপি নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হতে পারি। আজকের মত বিদায় নিচ্ছি, সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।
আল্লাহ হাফেজ।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

সিম আলু ফুলকপি এবং রুই মাছ।সাধারণত এগুলোকে আমাদের এলাকায় বারো মিশালি সবজি বলে কিংবা তরকারি বলে। যেগুলো খেতে অনেক সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যসম্মত হয়ে থাকে। পুষ্টিগুণে গুণান্বিত এসকল খাদ্যগুলো।

এগুলো মূলত আমার প্রিয় খাদ্য। তাছাড়াও আপনি সর্বমোট ২3 টি পর্যায়ে আপনার রেসিপিটি সম্পন্ন করেছেন। যা সত্যিই একটি পরিশ্রমের কাজ। এবং সর্বোচ্চ সম্মানের অধিকারী।

ভালো লাগলো

·

ভাইয়া আপনার মন্তব্য আমি মুগ্ধ হয়ে গেছি। সত্যিই এত সুন্দর করে যদি কেউ মন্তব্য করে খুবই আনন্দ লাগে। এবং কাজ করার আগ্রহ বেড়ে যায়। আপনার জন্য ভালোবাসা অবিরাম।

প্রথমে আপনি এই মাছটি দারুণভাবে ভেঁজে নিলেন। আমার খুবই ভাল লাগল এবং প্রতিটি প্রয়োজনীয় উপকরণ আপনি সঠিকভাবে দিয়েছেন তারপর আপনি প্রতিটি ধাপ খুব সুন্দর করে উপস্থাপন করেছেন ।আপনার রান্নার ধরনটি খুবই ভালো তারপর তারপর ফুলকপি,, আলু,শিম দিয়ে আপনি রুই মাছের রেসিপি সম্পন্ন করলেন। দারুণভাবে জমে উঠেছে আর এগুলো খেতে অনেক ভালো লাগে। আপনার জন্য শুভকামনা রইল

·

ভাইয়া আপনাদের ভালোলাগা এই কাজের অগ্রগতি বাড়িয়ে দেয়। আপনার এত সুন্দর গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য ভালোবাসা অবিরাম।

শীতের দিনে ফুলকপি দিয়ে যেকোনো রান্না খেতে খুবই মজা। আপনার শীতের দিনের ফুলকপি দিয়ে রুই মাছের রেসিপি তৈরি করেছেন, দেখে অনেক সুস্বাদু মনে হচ্ছে। তাই বারবার খেতে ইচ্ছা করছে।আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইলো।

এই রেসিপিটা শীতকালের সেরা রেসিপি। ফুলকপি আলু শিম আর রুই মাছ সবকিছু মিলিয়ে অনেক সুন্দর একটা রেসিপি তৈরি হয়। এই রেসিপিটা আমার সত্যিই খুব ভালো লেগেছে। খেতেও আমার বেশ লাগে। এক কথায় অসাধারণ রেসিপি ছিল আপনার। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা রইল যাতে আরো সুন্দর রেসিপি আমাদের সবার মাঝে শেয়ার করার জন্য

·

রেসিপিটি আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুবই খুশি হলাম। এবং আপনার এটা সবচেয়ে প্রিয় খাবার এটা জেনে আরো বেশী খুশী হলাম। আপনাদের ভাল লাগা নতুন কিছু করার মন মানসিকতা তৈরি করে দেয়। আপনার এত সুন্দর গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ আপু।

শীতের সময় ফুলকপি ও সিম দিয়ে রুই মাছ ভেজে রান্না করলে খেতে খুবই সুস্বাদু হয়। আর এইরকম সুস্বাদু খাবার শুধু শীতের সময়ে রান্না করা হয়। আর এইরকম লোভনীয় রেসিপি আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য। আপনাকে আমার বাংলা ব্লগের পক্ষ থেকে জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া।

·

আপনার সুন্দর মন্তব্যটি আমাকে মুগ্ধ করেছে। আপনাদের এত সুন্দর মন্তব্য পেলে খুবই ভালো লাগে। আপনার জন্য ভালোবাসা অবিরাম ভাইয়া।

খুবই মজার অসাধারণ একটি রেসিপি শেয়ার করেছেন। আর আপনার রান্নার পদ্ধতি গুলো আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। আমরা সাধারণত এভাবেই রান্না করে থাকি। আর এই রান্না ধাপগুলো আপনি খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন। ধন্যবাদ আপনাকে আর আপনার জন্য শুভকামনা।

·

আপনার ভালো লেগেছে জেনে নিজেকে অনুপ্রাণিত মনে হচ্ছে। আপনাদের ভাল লাগাই কাজের অগ্রগতি বাড়িয়ে দেয়। আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল ভাইয়া।

  • রবিউল ভাই শীতের সময় অসাধারণ একটি খাবার তৈরি করেছেন, মাছ আমি ব্যক্তিগতভাবে খেতে অনেক ভালোবাসি এবং রুই মাছ তো আমার পছন্দের তালিকার সর্ব প্রথমে রয়েছে। রুই মাছের সাথে সিম আলু ব্যাপারটা বেশ মজাদার হয়েছে। অনেক সুস্বাদু রেসিপি আমাদের মাঝে উপস্থাপন করেছেন ভাই ,আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
·

আপনার গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া।

ফুলকপি দিয়ে মাছের তরকারি অসাধারণ হয়েছে। আপনি সব ধরনের উপকরণ সুন্দরভাবে পরিমাণ মতো ব্যবহার করেছেন যা আপনার রেসিপি কে অনেক সুস্বাদু করেছে ।আপনি ধারাবাহিকভাবে প্রক্রিয়া গুলো অনুসরন করেছেন এবং উপস্থাপন করেছেন যাতে যে কেউ খুব সহজেই রেসিপিটি করে ফেলতে পারে। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি রেসিপি আমাদের মাঝে তুলে ধরার জন্য।

·

আপনি অনেক সুন্দর করে কমেন্টই করেছেন। আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। আপনাদের এরকম কমেন্ট এ কাজ করার আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়। আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

আসলে শীতকালে সিম,ফুলকপি দিয়ে যেকোনো তরকারি খুব ভালো লাগে খেতে। আর আপনি রুই মাছ দিয়ে তরকারি সম্পন্ন করেছেন যা দেখতে খুবই সুন্দর হয়েছে। আপনার প্রতিটি ধাপ অনেক সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন। শুভকামনা রইলো ভাইয়া।

·

আপনার গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

শীতকাল আপনার কাছে ভালো লাগে? আমার কাছে তো শীতকাল একদমই ভালো লাগে না। এটা ঠিক যে শীতকালে অনেক ধরনের সবজি পাওয়া যায়। আপনার আজকের ফুলকপি আলু দিয়ে রুই মাছের সবজিটি খুব মজাদার হয়েছে দেখেই বোঝা যাচ্ছে। আসলে আমি প্রতিবার শীতে রান্না করে খাই কিন্তু মনে থাকে না। কারো রান্না দেখলে তখন মনে পরে। আজকেও আপনার রান্না দেখে মনে পড়ল যে এভাবে তো রান্না করে খেতে হবে । ধন্যবাদ আপনাকে সেজন্য।

·

আপু আপনার কমেন্ট পড়ে হাসতে হাসতে পেট ব্যথা হয়ে গেছে। তরকারি দেখলে যে আপনার স্মৃতিশক্তি লোপ পায় সেটা তো জানতাম না আজকে জানলাম। যাইহোক রেসিপি দেখলে যাতে মনে পড়ে তাহলে আমি এবার প্রতিদিন রেসিপি দেওয়ার চেষ্টা করব। আর আপনার জন্য ভালোবাসা অবিরাম বললে কম হয়ে যাবে সীমাহীন ভালোবাসা।

আপনি রুই মাছের খুব সুন্দর একটি রেসিপি প্রস্তুত করেছেন হ্ ফুলকপি দিয়ে। আপনার রেসিপিটি দেখতে খুবই লোভনীয় দেখাচ্ছে দেখে খেতে ইচ্ছে করছে। মনে হচ্ছে খেতে অনেক সুস্বাদু হবে। সেইসাথে সুন্দর উপস্থাপনা করেছেন আপনারা রেসিপিটি সম্পর্কে। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা থাকলো রবিউল ভাই।।।

·

আপনার কমেন্ট পড়ে খুবই আনন্দ অনুভব করছি। আপনারা এভাবে উৎসাহ দিলে আরও ভাল কিছু করতে পারব। আপনার গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য শুভকামনা রইল।