আমার তোলা কিছু আলোকচিত্র। ১০% প্রিয় লাজুক খ্যাঁক এর জন্য।

14일 전

কেমন আছেন আমার বাংলা ব্লগের বন্ধুরা? আমি ভালো আছি। আশাকরি আপনারা ও ভালো আছেন।


শীতের এই সময়টা আমার খুবই প্রিয়। যদিও অনেকের কাছেই শুনি তাদের কাছে নাকি শীতকাল ভালো লাগেনা। এই শীতকালের একটা অন্যরকম সৌন্দর্য আছে। শীতকালে যে কোন জায়গায় ঘোরাফেরা করে অনেক বেশি মজা পাওয়া যায়। গরমের দিনে ঘোরাফেরায় সমস্যা দেখা দেয়। আমি গরম সহ্য করতে পারিনা। এজন্য আমার কাছে শিতকাল আরো বেশি ভালো লাগে। শীতের এই সময়ে প্রতিবছরই আমি চেষ্টা করি যত বেশি সম্ভব ঘোরাফেরা করার। আর কোথাও ঘুরতে গেলে ছবি তুলতে কখনো ভুলিনা। এত ছবি তুলি তারপরেও ছবি তোলার তৃষ্ণা মনে হয় মেটেনা। আজ আমি আপনাদের সাথে গত কয়েক দিনে আমার তোলা কিছু ছবি ভাগ করে নেবো। তো চলুন শুরু করি।

প্রথম ছবি

IMG_20211120_153535.jpg

লোকেশন- লিংক

ছবিতে দেখা যাচ্ছে ঘাটে একটি নৌকা ভেড়ানো আছে। পাশেই একটি অস্থায়ী ওঠানামার ব্যবস্থা দেখা যাচ্ছে। গ্রামের ওপর কিছু কাঠ দিয়ে এই ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে। ভরা বর্ষায় নদীর সৌন্দর্য সবচাইতে বেশি। তবে এই শীতের সময় ও নদীর একটা আলাদা সৌন্দর্য লক্ষ্য করা যায়। এই সময়ে নদীর পানি একদম পরিষ্কার থাকে। এই পানি দেখতে খুবই ভালো লাগে। আমি নদীতে গোসল করতে খুবই পছন্দ করি। যদিও শীতের সময় আমি পানি খুবই ভয় পায়। সেই জন্য পানি দেখতে ভালো লাগলে ও শীতের সময় আমি কখনোই নদীতে গোসল করি না। তবে এই সময় আমি নৌকায় করে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে পছন্দ করি।

দ্বিতীয় ছবি

IMG_20211120_160244.jpg

লোকেশন- লিংক

সেদিন চরে ঘুরতে গিয়েছিলাম। বন্ধুদের সাথে যখন নদী পার হয়ে ওপারে পৌঁছলাম তখন চরের রাস্তা দিয়ে হাঁটছিলাম। হঠাৎ করে এই বুনোফুলে চোখ আটকে গেল। ফুলটি দেখতে খুবই চমৎকার লাগছিলো। সাথে সাথেই ফুলের ছবি তুলে নিলাম।

তৃতীয় ছবি

IMG_20211120_154837.jpg

লোকেশন- লিংক

আজকাল গ্রামেও প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। গ্রামের ঘরে ঘরে এখন মোটরসাইকেল দেখা যায়। হাল চাষের জন্য মানুষ আর আগের মত গরু আর লাঙ্গল ব্যবহার করেনা। এখন সবাই ট্রাক্টর ব্যবহার শুরু করেছে। গ্রামীণ জনপদ এভাবে এগিয়ে যাচ্ছে দেখে ভালই লাগলো।

চতুর্থ ছবি

IMG_20211124_180653.jpg

লোকেশন- লিংক

ছবিতে একটি শতবর্ষী গাছ দেখা যাচ্ছে। এই ধরনের গাছ আজকাল সহজে শহরের দেখতে পাওয়া যায় না। আমাদের শহরে একসময় এই ধরনের অনেকগুলি গাছ ছিলো। কয়েক বছর আগে সড়ক উন্নয়নের নামে সব গাছগুলি কেটে ফেলা হয়েছে। এই নিয়ে স্থানীয় লোকজন অনেক আপত্তি জানিয়েছিল। কিন্তু প্রভাবশালীদের দাপটে সেই আপত্তি টেকেনি। যে রাস্তাগুলোর পাশে বড় গাছ গুলি ছিল সেই রাস্তাগুলি এখন একদম ফাঁকা পড়ে আছে।

পঞ্চম ছবি

IMG_20211120_161002.jpg

লোকেশন- লিংক

ট্রলারে করে যখন চরের দিকে যাচ্ছিলাম। তখন হঠাৎ করে এই জায়গাটা দেখলাম। জায়গাটা দেখেই আমার কাছে খুব ভালো লাগলো। তাই চট করে একটা ছবি তুলে নিলাম।

ষষ্ঠ ছবি

IMG_20211120_155359.jpg

লোকেশন- লিংক

এটির চরের একটি বাড়ি। পাশেই ছাগলের পাল চড়ে বেড়াচ্ছে। গ্রামীণ পরিবেশ দেখলে আমার ভালো লাগে। সবকিছুর ভেতর একটা সজীব সতেজ ভাব। টিনের ঘর, সুন্দর প্রাকৃতিক পরিবেশ, গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগি সবকিছুই আছে। সাথে আছে পর্যাপ্ত জলাশয়। আর কি চাই। এমন একটা পরিবেশ বসবাস করার জন্য খুবই চমৎকার।

সপ্তম ছবি

IMG_20211119_074942.jpg

লোকেশন- লিংক

সেদিন বাজারে গিয়েছিলাম সবজি কেনার জন্য। বাজারে গিয়ে একটা পরিবর্তন লক্ষ্য করলাম। শীতকাল চলে আসায় বাজারে একটা বেশ বড় পরিবর্তন এসেছে। বিক্রেতারা শীতের নানা রকম সবজি নিয়ে বসেছে বিক্রির জন্য। যদিও এখন পর্যন্ত সবজির দাম চড়া। ক্রেতাদের সেটা নিয়ে বেশ অসন্তোষ লক্ষ্য করা গেল।

অষ্টম ছবি

IMG_20211119_074839.jpg

লোকেশন- লিংক

নানারকম টাটকা সবজি নিয়ে ক্রেতার অপেক্ষায় বসে আছে বিক্রেতা। বাজারের এই রকম পরিস্থিতি দেখে বেশ ভালই লাগছিল। আমি গরমের সময় সবজি খুব একটা বেশি খাই না। কিন্তু শীতের এই সময় আমি বিভিন্ন রকমের সবজি খাই। যেগুলি আমার খুবই পছন্দ।

নবম ছবি

IMG_20211119_074834.jpg

লোকেশন- লিংক

ফুলকপি, পাতাকপি, শসা, গাজর এর ভেতর তিনটি জিনিস আমার খুবই পছন্দ। ফুলকপি, শসা, গাজর। শীতের সময় এই তিনটি জিনিস আমার প্রচুর খাওয়া হয়। এই প্রত্যেকটা সবজি খুবই স্বাস্থ্যকর এবং প্রচুর পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ।

দশম ছবি

IMG_20211119_074820.jpg

লোকেশন- লিংক

আরো একজন সবজি বিক্রেতা তিনি বরবটি লাউ আর শাক নিয়ে বসে আছেন ক্রেতার জন্য। লাউ আমার খুবই প্রিয় একটি সবজি। বিশেষ করে ইলিশ মাছ এবং শোল মাছ দিয়ে লাউ এর তরকারি খেতে আমার খুবই ভালো লাগে। লাউ শরীরের জন্য খুবই উপকারী একটি সবজি।


আজকের মতো এখানেই শেষ করছি।

পরবর্তীতে আপনাদের সাথে দেখা হবে অন্য কোন নতুন লেখা নিয়ে।

সে পর্যন্ত সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন।



ফটোগ্রাফির জন্য ব্যবহৃত যন্ত্রহুয়াই নোভা ২আই
ফটোগ্রাফার@rupok

logo.png

Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png

🇧🇩🇧🇩ধন্যবাদ🇧🇩🇧🇩


@rupok


Polish_20211012_184119287.jpg

আমি রূপক। আমি একজন বাংলাদেশী। আমি বাঙালি। আমি বাংলায় মনের ভাব প্রকাশ করতে ভালোবাসি। আমি আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটিকেও ভালোবাসি।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

ভাইয়া আমারও ফুলকপি, শসা, গাজর খুবই প্রিয় সবজি। ভাইয়া আপনি বিভিন্ন ধরনের ফটোগ্রাফি আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন। প্রতিটি ফটোগ্রাফি অসাধারণ হয়েছে। বিশেষ করে নদীর পাড়ে নৌকা ভেড়ানোর ফটোগ্রাফি অনেক বেশি সুন্দর হয়েছে ।শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

·

ধন্যবাদ ভাইয়া।

আপনার ফটোগ্রাফি গুলো খুবই সুন্দর হয়েছে। প্রত্যেকটা ফটোগ্রাফি খুবই সুন্দরভাবে তুলেছেন। আমার অনেক ভালো লেগেছে।

·

ধন্যবাদ আপনাকে।

ভাইয়া,শীত কাল আমিও তেমন পছন্দ করিনা।তবে শীতকালের প্রাকৃতিক পরিবেশটা আমার কাছে অসাধারণ সুন্দর লাগে। তবে ভাইয়া, আপনার কথাটি একদম ঠিক শীতে ঘোরাফেরা করার আনন্দটাই আলাদা। শীতে ঘোরাফেরা করতে খুবই ভালো লাগে। গরমে প্রচুর সমস্যায় পড়তে হয়।
ভাইয়া, আপনার ফটোগ্রাফি গুলো সত্যিই অসাধারণ ছিল। আপনি প্রতিটা ফটোগ্রাফির সাথে আপনি বর্ণনাসহ তুলে ধরেছেন।

ভাইয়া,আপনার ফটোগ্রাফির মধ্যে আমার তৃতীয় ফটোগ্রাফিটা খুবই ভালো লেগেছে। সাথে এই কথাটিও আমার খুবই ভালো লেগেছে।আধুনিকতার ছোঁয়া প্রতিটি গ্রামে ছড়িয়ে পড়ুক আমরা প্রতিটি মানুষ চাই।

আজকাল গ্রামেও প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। গ্রামের ঘরে ঘরে এখন মোটরসাইকেল দেখা যায়। হাল চাষের জন্য মানুষ আর আগের মত গরু আর লাঙ্গল ব্যবহার করেনা।

ধন্যবাদ ভাইয়া।

·

ধন্যবাদ আপু।

যদিও শীতের সময় আমি পানি খুবই ভয় পায়।

ভাইয়া এইটা পড়ে আমি হাসতে হাসতে শেষ। কি লিখলেন এটা!ভাবিকে বলবো আপনি ভাবির কথা না শুনলে যেনো আপনাকে পুকুরে চুবানি দেওয়ার ভয় দেখায়।তাহলে সব কথা শুনবেন। 😜

সবকিছুর ভেতর একটা সজীব সতেজ ভাব।

আমিও আপনার সাথে একদম একমত।আসলেই গ্রামের ব্যাপারটাই আলাদা।শহর যতই সুন্দর হোক না কেনো, গ্রামের পরিবেশটা কেমন যেনো শান্তির।সুন্দর হয়েছে ছবি গুলো

·

গরম পানি ছাড়া গোছল করতে পারি না। শীতে এই একটা জিনিস নিয়ে ঝামেলা হয়।

আপনার সবগুলো ফটোগ্রাফি এবং বিবরণ জাস্ট অসাধারণ হয়েছে। প্রত্যেকটা ছবির বিবরণসহ দিয়েছেন যা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে ভাইয়া। আপনার সবগুলো আলোকচিত্রের মোটামুটি আমার কাছে ভালো লেগেছে। তার মধ্যে বেশি ভালো লেগেছে তিন নাম্বার ফটোগ্রাফি টি। ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি পোষ্ট আমাদের সবার মাঝে তুলে ধরার জন্য।

ভাইয়া অসাধারণ ছবি ছিলো সব... প্রতিটি ছবি ফাটাফাটি... এক একটা ছবি কথা বলে। ৪নাম্বার ছবিটি শিতের একটা কুয়াশা আহ কতো সুন্দর লাগছে৷

শিতের সবজি গুলার ছবিও ও অসাধারণ ছিলো💓

·

ধন্যবাদ ভাইয়া।

সব গুলো ছবি অনেক সুন্দর হয়েছে ।আপনার ছবিগুলো দেখে মনে হচ্ছে শীত আসলেই চলে এসেছে ।শীতের দিনের অনেক রকম সবজি পাওয়া যায় যেটা খেতে আসলে খুব মজাদার। আপনি শতবর্ষী গাছের যে ছবিটা দিয়েছেন সেটি আমার সবথেকে বেশি ভালো লেগেছে ।শুভকামনা রইল ।আপনার জন্য ।

এই শীত আমার কাছেও প্রিয় ।কারন এই সময় বন্ধুদের নিয়ে গ্রামে ঘুরতে যাওয়া এরপর খেজুরের রস গভীর রাতে এনে পায়েস খাওয়ার মজাই আলাদা ।তবে পানি একটু ভয় পেলেও নদী দেখলে সহ্য হয় না বন্ধুদের সাথে নেমে যাই শীত ভুলে ।আপনার ফটোগ্রাফিগুলা খুব সুন্দর ছিলো ।ঘুরে ঘুরে আনন্দ উপভোগ করে ছবি তুলে শেয়ার করেছেন ।ধন্যবাদ ভাই এতো সুন্দর ফটোগ্রাফি শেয়ার করার জন্য ।

অসাধারণ ফটোগ্রাফি ভাই। আপনার তোলা ছবিগুলো দেখে গ্রামের কথা মনে পড়ে গেলো। গ্রামে গেলে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে। অনেক দিন হয়ে গেছে গ্রামে যাই না।
অনেক ধন্যবাদ ভাই গ্রামের এই ছবিগুলো আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

আপনার ফটোগ্রাফির দক্ষতা অনেক ভালো। আমার কাছে প্রথম এবং পঞ্চম ছবি দুটি অনেক ভালো লেগেছে।

·

ধন্যবাদ আপনাকে ভাই।