রিজিকের মালিক একমাত্র সৃষ্টিকর্তা ||১০%লাজুক খ্যাকের জন্য ||

4개월 전

আচ্ছালামুয়ালাইকুম প্রিয় বন্ধুগন

মার বাংলা ব্লগের বন্ধুগন আশা করি আপনারা সবাই অনেক ভালো আছেন, আলহামদুলিল্লাহ আমিও ভালো আছি।প্রতিদিন যেমন মনের ভাব প্রকাশ করতে আসি ঠিক আজকেও তেমন মনের ভাব প্রকাশ করতে আসছি। তবে আজকে শেয়ার করব গতকাল ওয়াসাতে পানি আনতে গিয়ে বিপদে পরে গেছিলাম তা নিয়েই আজকের ব্লগ।


carafe-310297_1280.png

source

আমরা তিন বন্ধু এক রুমে থাকি এক এক জন এক এক জায়গায় জব করি তাই সকাল হলেই সবাই তার তার কর্মস্থলে ছুটে চলি।সারাদিন অফিস করে সন্ধ্যায় বাসায় ফিরি। গতকাল বাসায় এসে দেখি কোন খাবার পানি নাই। আমি প্রথমে আসছি তখন ভাবলাম ওরাও আসুক এক সাথে গিয়া পানি নিয়ে আসব। ওদের আসতে আসতে রাত নয়টা বাজলো। ওরা এসেও একটু রেস্ট নিল এভার পানি আনার জন্য বের হবো। তখন ওয়াসার কার্ড খুজে পাই না।পাশের রুমে জিজ্ঞাসা করলাম কার্ড কই তখন এক ভাই বল্লো কার্ড তো বড় ভাইয়ের কাছে।বড় ভাই সে ঘুরতে গেছে, কল করলাম সে বল্লো আসতে একটু দেরি হতে পারে।তার অপেক্ষায় বসে আছি। নয়টা পঞ্চাশ মিনিটে সে বাসায় আসল তারাতাড়ি করে কার্ড নিয়ে চলে গেলাম। কেননা ওয়াসা পাম্প রাত দশটায় বন্ধ করে। পানি না খেয়ে থাকা সম্ভাব না এক বেলা ভাত না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু পানি খাইতেই হয়।পাম্প গিয়ে দেখি সব কিছু লক করার জন্য প্রস্তুতি নিছে।এর মধ্য আমরাও চলে গেলাম,তখন পাম্পের লোক বল্লো ভাই আজকে আর পানি নতুন করে দেওয়া যাবে না।ভিতরে যে আছে শুধু সে নিয়ে যাবে নতুন করে কেউ ডুকবেন না।


water-1761027_1280.webp
source

আমার মন খারাপ হলো,এতো কষ্ট করে পানি নিতে আসাছি কিন্তু পানি নিতে পারব না। তখন আমি বন্ধুদের বললাম পানি যখন নিতে আসছি নিয়েই যাবো। পাম্পের ভাইকে বললাম ভাই আমাদের একদম পানি নাই, পানির অপর নাম জীবন না খেয়ে তো বাচত পারব না। তখন বলতে ছিল ভাই আগে কেন আসেন নায়। কি আর বলব দুঃখের কথা তাকে বললাম তখন তিনি কিছুই বলল না চুপ হয়ে আছে।বুঝতে আর বাকি রইল না যে তিনি রাজি হয়ে গেছে। আমি বোতল আর কার্ড নিয়ে ডুকে গেলাম। অন্য কল চালু করতে নিলাম চালু হয় না কয়েকবার চেষ্টা করলাম কিন্তু হচ্ছে না,দেকি আমার কার্ডে ব্যালেন্স নাই। বিপদ!!

পাশের যে লোক পানি নিতেছিল তার পানি নেওয়ার পাত্র ভরে গেছে।এখন শুধুই পানি পড়তেছে আমি তারতারি করে আমার পানির পাত্র ভড়ে নিলাম। দশ লিটার ভরতে পারছি এর মধ্য অফ হয়ে গেছে।তখন সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকুর হলাম যে আর ভাবতে লাগলাম আল্লাহ চাইলেই সব কিছুই পারে। আমার কার্ডের ব্যালেন্স ছিল না অথচ আমি দশ লিটার পানি নিয়ে আসছি। আল্লাহ যদি সাহায্য না করত তাহলে আমার খালী বোতল নিয়েই আসতে হত। এই জন্যই বলা হয়েছে তোমরা শুধু চেষ্টা করো রিজিকের মালিক আমি আল্লাহ।আমাদের যেহেতু সৃষ্টি করছেন দায়িত্ব তিনি অবশ্যই নিবেন। তাই আমরা যে কোন কিছু চেষ্টা করব, উপরে উঠিয়ে দেওয়ার মালিক আল্লাহ।


C3TZR1g81UNaPs7vzNXHueW5ZM76DSHWEY7onmfLxcK2iP5EQNf9UhgoCRXfwUz17YQAKX13QameeYo9G5k1jxErds3ajiK4Urb2XheQwne75zqnxKeZJYn.png

মোরাল অফ দ্যা স্টোরি কোন কাজে হতাশ হওয়া যাবে না,মনে রাখবেন আপনি আমি যা কিছুই করি একজন দেখেন। চাওয়া পাওয়া সব তার কাছে হবে।শুধু ধৈর্য্য ধরবেন আর তার কাছে চাইবেন। আমাদের যখন সৃষ্টি করছেন কোননা কোন ভাবেই তিনি খাওয়াবেন,আমরা শুধু শুকুর করে যাবো। তিনি আমাদের রিজিকে যা কিছু লিখিয়ে পাঠিয়েছেন তা সবই আমরা খেতে পারব কম ও না বেশী ও না। তাই সকল কাজে তাকে স্মরণ করুন

C3TZR1g81UNaPs7vzNXHueW5ZM76DSHWEY7onmfLxcK2iP5EQNf9UhgoCRXfwUz17YQAKX13QameeYo9G5k1jxErds3ajiK4Urb2XheQwne75zqnxKeZJYn.png

আজকে লেখার মতো এতোটুকই ছিল,ইনশাআল্লাহ বেচে থাকলে আবার নতুন কিছু নিয়ে আসব।আপনার ও আপনার পরিবারের সু-সাস্থ্য কামনা করেই আজকের বিদায় নিচ্ছি।

আল্লাহ হাফেজ

ধন্যবাদন্তে

@salmanabir

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

আসলেই আমাদের দৈনন্দিন ছোট ছোট ব্যাপার গুলো থেকে অনেক শিক্ষা নেওয়ার আছে। ব্যাপারটা যতটা ছোট মনে হচ্ছে ঠিক ততটাই কঠিন। কেননা মনে হচ্ছে সিম্পল একটা ব্যাপার পানির ব্যাপারটি কেন আপনি পোস্ট করেছেন কিন্তু আমার কাছে মনে হয়েছে এর পেছনে কত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় লুকিয়ে আছে। আসলেই রিজিক উপর থেকে আসে সৃষ্টিকর্তা আমাদের মাঝে বিলিয়ে দেন। আর আমরা যদি শুকরিয়া আদায় করি তাহলে আমাদের মাঝে আরও বেশি বাড়িয়ে দেবেন। যাইহোক আপনি অবশেষে পানি আনতে পেরেছেন এটাই সবচেয়ে বড় বিষয়।

ভাইয়া,আপনি একদম ঠিক কথা বলেছেন রিজিকের মালিক উপরওয়ালা।আপনার যদি রিযিক থাকে আপনি যেখানেই যাবেন না কেন আপনার রিজিক আল্লাহ সেখানে তৈরি করে রেখে দিবে। ভাইয়া, পানির অপর নাম জীবন পানি ছাড়া আমরা এক মুহূর্ত চলতে পারিনা। ১৪ দিন যদি আমরা না খেয়ে থাকি সমস্যা হবে না কিন্তু ৭ দিন পানি না পেলে আমরা বাঁচতে পারব না। যাইহোক ভাইয়া,আপনার পুরোটা লেখা পড়ে খারাপ লেগেছে পানির জন্য আপনি এতটা কষ্ট করেছেন। তবে সৃষ্টিকর্তা চেয়েছি বিধায় আপনি অন্যের মাধ্যমে পানি পেয়েছেন শুনে খুব ভালো লাগলো।ধন্যবাদ ভাইয়া, এমন একটি পোস্ট আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।।

ভাইয়া আপনি ঠিক বলেছেন রিজিকের মালিক একমাত্র সৃষ্টিকর্তা। আপনার পোস্ট ভিজিট করে ভালো লাগলো। আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো 🥀

পানির অপর নাম জীবন ভাত না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু পানি না খেয়ে কিন্তু থাকা যায় না। আপনাদের গল্পটা পড়ে ভাল লাগল। আর আপনি ঠিক বলেছেন যে আল্লাহ যদি চায় তাহলে সে খুব সহজেই কোন কাজ করিয়ে দিতে পারে। আসলেই রিজিকের মালিক একমাত্র আল্লাহ

ঠিক বলেছেন ভাই রিজিকের মালিক ঐ মহান সৃষ্টিকর্তা। আমরা কে কতটা পাব সেটা আগেই ঠিক করা। সেজন্য সঠিক পথে থাকলে সেটা পাওয়া যায়। আপনার পোস্ট টা আমাদের অনেক কের জন‍্যই বেশ শিক্ষনীয় ছিল। ধন্যবাদ আমাদের সাথে শেয়ার করে নেওয়ার জন্য।।

আপনি একদম ঠিক বলেছেন রিজিকের মালিক একমাত্র সৃষ্টিকর্তা পৃথিবীর আর কারো ক্ষমতা নেই রিযিক দিক দেওয়া। তবে পানি নিয়ে আপনার বিরম্বনায় কথা শুনে খুবই খারাপ লাগলো। খুব সুন্দর ভাবে আপনার সাথে ঘটে যাওয়া বিষয়গুলো আমাদের সাথে তুলে ধরেছেন। আপনি ঠিক বলেছেন আল্লাহ চাইলে সবকিছু করতে পারে। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

রিজিকের মালিক রাজ্জাক ,এইকথা আমাদেরকে প্রতি বিশ্বাস করতেই হবে। কারণ তিনি আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন এবং আমাদেরকে সৃষ্টি করার পূর্বে আমাদের রিজিক দিয়েছেন। আর এত কষ্ট জাভা বলেই অনেক স্মৃতি মনে পড়ে যায়। আর আপনি ঠিকই বলেছেন এক বেলা ভাত না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু পানি না খেয়ে থাকা প্রায় অসম্ভব। এবং অসহনীয় গল্প আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

ভাই ঠিকই বলেছেন রিজিকের মালিক আল্লাহ ।আসলেই রিজিক একমাত্র মহান সৃষ্টি কর্তাই দিয়ে থাকে। আপনি পানি আনতে যে যে ভোগান্তি দেখেছি দেখে খুবই খারাপ লেগেছে ।আর পরিশেষে যে বলেছেন যে পানি অপর নাম জীবন এটা সত্যি ।একবেলা ভাত না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু এক ঘন্টা পানি না খেয়ে থাকা আমাদের জন্য কষ্টকর হয়ে যায়। ধন্যবাদ আপনাকে।

মহান আল্লাহ সর্বোত্তম রিজিকদাতা। শুধু সময়ের দোলাচালে কখনো কখনো বিপত্তি মনে হতে পারে। আসলে তা কিন্তু বিপত্তি নয় এভাবেই আমাকে দেওয়া হচ্ছে। আমি মহান আল্লাহর কাছে সাহায্য ও রিজিক কামনা করছি।

আপনার কথাটির সাথে আমি একমত পোষণ করছি। অবশ্যই রিজিকের মালিক একমাত্র সৃষ্টিকর্তা। অনেক সময় দেখা যায় খাবার সামনে থাকা সত্বেও যে কোন বাহ্যিক কারণে খাওয়া হয় না। আবার অনেক সময় দেখা যায় খুবই অপ্রত্যাশিত ভাবে খাবার গ্রহণ করতে হয়। আপনার পুরো পোস্টটি দেখে আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। এত অসাধারন পোষ্ট শেয়ার করার জন্য আপনাকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

আসলে রিজিকের মালিক আমাদের সবসময় মনেপ্রাণে বিশ্বাস করা প্রয়োজন। আপনার কার্ডে কোন টাকা ছিল না তারপরও আপনি 10 লিটার পানি আনতে পেরেছেন এটা দেখেই বুঝতে পারা যায় আল্লাহ আপনার সহায়তা করছেন।

আমি আপনাকে আরো একটি উদাহরণ দেই প্রতিটি পাখি যখন সকালে বের হয়নি তারা খালি পেটে বের হয় কিন্তু সন্ধ্যার সময় তারা সবাই ভরা পেটে চলে আসে। এটাই সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা। তিনি ইচ্ছা করলে সবকিছুই করতে পারেন।