প্যারাময় জীবন শুরু

2개월 전

তিনটা দিন ভীষন আরামে ছিলাম। যদিও কোনো রকম প্রফেশনাল কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম না, তবে মোটামুটি সময়গুলো কেটেছে একদম ঘুরেফিরে এবং আরাম আয়েশ করে বাড়িতে ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে। কিন্তু একটা কথা আছে, সেটা হচ্ছে আরাম-আয়েশ বেশিক্ষণ থাকে না। তবে যাইহোক এটা একদম সত্যি একটা কথা,যেহেতু কর্মজীবী মানুষ তাই কর্মই আমার প্রধান লক্ষ্য। তাই আরাম আয়েশের চিন্তা এত মাথায় নিলে হবে না। সবমিলিয়ে উৎসবের সময়টা ভালো গিয়েছে। যাইহোক এই চিন্তা আমার আর মাথায় আপাতত নেই বললেই চলে ।এখন সামনের দিকে এগিয়ে চলতে হবে এবং নিজের মত করে কাজ করতে হবে এটাই যেহেতু সত্য, তাই সেটাকে লক্ষ্য করে এখন এগোনোর চেষ্টা করছি।


ঘুম থেকে উঠতে সত্যিই ভীষণ কষ্ট হচ্ছিল, কারণ তিন দিন একটু ভিন্নভাবে সময় কেটেছে এবং প্রচুর অলস ভাবে সময় কাটিয়ে দিয়েছি। সারা দিন শুয়েছিলাম । আজকে ভোর বেলা যখন ঘড়িতে অ্যালার্ম বাজতে ছিল, তখন মনেহচ্ছিল মাথার কাছে অনেক জোরে জোরে শব্দ করছিল। যাইহোক বহুকষ্টে বুঝে নিলাম যে আমাকে আমার গন্তব্যে যেতে হবে, অবশেষে তড়িঘড়ি করে উঠে নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করে, রওনা দিলাম কর্মস্থলের জন্য।
বাহিরে কঠোর লকডাউন চলছে, আসলে কঠোর বলে কি আছে তা আমি আজ পর্যন্ত বুঝলাম না , সবাই দেখি স্বাভাবিক। যাইহোক অবশেষে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হলাম এবং দীর্ঘ ক্লান্তির পরে অবশেষে কর্মস্থলে পৌঁছে গেলাম। যাইহোক এখন মোটামুটি মানসিকভাবে প্রস্তুত করেছি নিজেকে, মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য।
20210722_164145.jpg

20210722_163445.jpg

20210722_171822.jpg

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
STEEMKR.COM IS SPONSORED BY
ADVERTISEMENT
Sort Order:  trending

আপনার পোষ্টটা অনেক সুন্দর হয়েছে। আশা করি সকল স্বাস্থ্য বিধি মেনে বাইরে চলাচল করবেন।যাতে নিজেকে সুরক্ষা রাখতে পারেন। আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

·

ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।

·
·

এটা সবার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য দাদা।যে কোথাও যেতে যেতে দুই-একদিন আরামে কাটালে যেন স্বর্গ সুখ অনুভূত হয় কিন্তু আবার সেটা কাটিয়ে গন্তব্য স্থানে যেতে খুব গাফিলতি বা বিরক্তি দেখা দেয়।ধন্যবাদ দাদা।

·

ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।

পোস্টটা পড়ে অনেক ভালো লাগলো দাদা।